ITV News
Infinity TV News

আইপিএল স্পন্সরের দৌড়ে বাবা রামদেবের পতঞ্জলি!

খেলাধুলা ডেস্ক:
আইপিএলের টাইটেল স্পন্সর থেকে সরে দাঁড়িয়েছে চীনা কোম্পানি ভিভো। ভারতীয় ক্রিকেট কন্ট্রোল বোর্ড (বিসিসিআই) তাই আইপিএলের নতুন স্পন্সর খুঁজছে। সেই দৌড়ে ই-কমার্স প্রতিষ্ঠান অ্যামাজন, লার্নিং অ্যাপ ড্রিম ইলেভেন কিংবা বাইজুর নাম শোনা যাচ্ছে। কিন্তু এবারের নামটি চমক জাগানিয়া। ইয়াগো গুরু বাবা রামদেবের সংস্থা পতঞ্জলি আইপিএলের টাইটেল স্পন্সর হতে চায় বলে সংবাদ মাধ্যমের খবর।

রামদেবের সংস্থার মুখপাত্র এসকে তিজারাওয়ালা ইকোনমিক টাইমসকে বলেছেন, ‘আমরা আইপিএলের ১৩তম আসরের টাইটেল স্পন্সর হতে চাই। বিশ্বে পতঞ্জলির বাজার তৈরি করাই আমাদের লক্ষ্য।’ তারা বিসিসিআইকে আইপিএলের বিজ্ঞাপন স্বত্ত¡ পাওয়ার জন্য প্রস্তাব দেওয়ার কথা ভাবছে বলেও জানিয়েছেন তিজারাওয়ালা। তবে ক্রীড়া ও বাণিজ্য বিশ্লেষকরা মনে করছেন, ভিভোর মতো অন্য কোন বহুজাতিক প্রতিষ্ঠান আইপিএলের স্বত্ত¡ পেলে তা বিশ্বের কাছে আইপিএলের জনপ্রিয়তা বাড়াবে।

পতঞ্জলি টাইটেল স্পন্সর পেলে অর্থ পাওয়া ছাড়া কোন লাভ নেই আইপিএলের। বরং অনেক বেশি লাভ হবে পতঞ্জলির। দেশি কোন প্রতিষ্ঠান আইপিএলের স্বত্ত¡ পেলে মানুষের কাছে তার ইতিবাচক প্রভাব বাড়বে। ভিভোর সঙ্গে আইপিএলের প্রতি মৌসুমে ৪৪০ কোটি রুপির চুক্তি ছিল। বিসিসিআইয়ের জন্য এখন তাই ভিভোর মতো শক্তিশালী আর্থিক কাঠামো সমৃদ্ধ প্রতিষ্ঠান পাওয়া কঠিন হয়ে দাঁড়িয়েছে।

তবে বিসিসিআই প্রেসিডেন্ট সৌরভ গাঙ্গুলি মনে করেন না, ভিভো চলে যাওয়ায় আইপিএল কিংবা বোর্ড আর্থিক সংকটে পড়বে। গাঙ্গুলি বলেছেন, ‘ভালো জিনিস যেমন রাতারাতি পাওয়া যায় না। তেমনি ভালো জিনিস রাতারাতি হারিয়েও যায় না। আমি এটাকে আর্থিক সংকট বলতে রাজি নই। বরং এটাকে ছোট একটা ধাক্কা বলা চলে। বিসিসিআই অনেক বড় প্রতিষ্ঠান। সামান্য এই ঝাঁকুনি সামলানোর প্রশাসনিক দক্ষতা আমাদের আছে।’

Leave A Reply

Your email address will not be published.